May 18, 2022, 9:19 am

রাশিয়া-ইউক্রেন বিষয়ে চীনের সংবাদমাধ্যমের সেন্সরশিপ, উইবোতে ফাঁস

Spread the love

রাশিয়া-ইউক্রেনের মধ্যে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ে চীনের গণমাধ্যমগুলোর ভূমিকা কেমন হবে সেই বিষয়ে ‘নির্দেশাবলি’ অনাকাঙ্ক্ষিভাবে প্রকাশ পেয়েছে। ভুল করে চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উইবোতে ওই নির্দেশনাবলি পোস্ট করে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির মালিকানাধীন বেইজিং নিউজের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হরাইজন নিউজ। এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বিজনেস ইনসাইডারের খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার হরাইজন নিউজের উইবো পেজের পোস্টটি ছিল রাশিয়া-ইউক্রেনের মধ্যকার ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার খবর কীভাবে প্রচার করা হবে সে সম্পর্কিত ‘নির্দেশনা’ নিয়ে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীন রাশিয়ার সঙ্গে তাদের মিত্র সম্পর্ক জোরদার করেছে। পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যে সক্রিয় অর্থনৈতিক সম্পর্কও বেড়েছে। গবেষণা প্রতিষ্ঠান কার্নেগি মস্কো সেন্টারের তথ্যমতে, ২০০৪ সালে দুই দেশের মধ্যে ১ হাজার ৭০ কোটি মার্কিন ডলারের ব্যবসা ছিল। ২০২১ সালে তা বেড়ে ১৪ হাজার কোটিতে পৌঁছেছে।

সংবাদপত্রের স্বাধীনতার ওপর চীন সরকার কঠোর সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে। ফলে দেশটির গণমাধ্যমগুলো সরকারি হস্তক্ষেপ ছাড়া কতটুকু ও কী বলতে পারবে তা নির্দিষ্ট রয়েছে।

হরাইজন নিউজ তাদের উইবো পোস্টে বলেছে, রাশিয়ার বিপক্ষে যাবে এমন কোনো কোনো খবর প্রকাশ করা যাবে না। পশ্চিমাদের পক্ষে যায় এমন খবরের বিষয়েও একই নীতিমালা অনুসরণ করা হবে। তবে মঙ্গলবার উইবো পোস্টটি তুলে নেওয়া হয় বলে ওয়াশিংটন পোস্ট জানায়।

চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার একজন জ্যেষ্ঠ সম্পাদক মিং জিনউই ওয়াশিংটন পোস্টকে উদ্ধৃত করে উইচ্যাট ব্লগে লেখেন, সহজ কথায়, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন যেটাই মনে করুক না কেন, চীন রাশিয়াকে আবেগের জায়গা থেকে সমর্থন দেবে ও নৈতিক সমর্থন দিয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, ভবিষ্যতে তাইওয়ান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীন লড়াইয়ে নামলে তখন তাদের রাশিয়ার সমর্থন লাগবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই সম্পর্কিত আরো খবর...
العربية বাংলা English हिन्दी