May 17, 2022, 7:37 am

টানা তিন দিনের ছুটিতে পাটুরিয়ায় গাড়ির দীর্ঘ সারি

Spread the love

টানা তিন দিনের ছুটি পেয়ে অনেকেই রাজধানী ছেড়ে গ্রামের বাড়িতে ছুটছেন। এতে আজ (১৭ মার্চ) বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলগামী যাত্রী ও যানবাহনের চাপ পড়েছে। দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়েছে যাত্রীবাহী বাস, ব্যক্তিগত গাড়ি ও মালবাহী বিভিন্ন যানবাহন। এতে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট পার হতে কয়েক ঘণ্টার সময় লাগছে।

জেলা ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক (প্রশাসন) মেরাজুল ইসলাম বলেন, টানা তিন দিনের ছুটিতে মানুষ রাজধানী ছাড়ায় পাটুরিয়া প্রান্তে যানবাহনের চাপ পড়েছে। আজ ভোর থেকেই যাত্রীবাহী বাস ও বিভিন্ন ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ শুরু হয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীবাহী ও ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন তিনি। এ ছাড়া মালবাহী যানবাহনের চাপও আছে।

ট্রাফিক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ বেড়ে যাওয়ায় যানজট এড়াতে ছোট যানবাহনগুলো ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের শিবালয়ের টেপড়া থেকে নালী সড়ক দিয়ে চলাচল করছে। বেলা ১১টার দিকে পাটুরিয়া প্রান্তে যাত্রীবাহী শতাধিক বাস পাটুরিয়া-উথলী সংযোগ সড়কে সারিতে রাখা হয়েছে। এদিকে নালী বাজার থেকে পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাট পর্যন্ত দুই শতাধিক ব্যক্তিগত গাড়ি নদী পারের অপেক্ষা আছে। এ ছাড়া ট্রাক, কাভার্ড ভ্যানসহ পণ্যবাহী তিন শতাধিক যানবাহন ঘাট এলাকায় আটকা পড়েছে। এসব পণ্যবাহী গাড়িগুলো পাটুরিয়া ট্রাক টার্মিনালসহ উথলী সংযোগ সড়কের আশপাশে রাখা হয়েছে।

ঢাকা থেকে গোল্ডেন লাইন পরিবহনের একটি বাসে স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে ফরিদপুর যাচ্ছেন ব্যাংকের কর্মকর্তা আকরাম হোসেন (৩৫)। তিনি বলেন, সকাল আটটার দিকে গাবতলী থেকে বাস উঠেছেন। সকাল ১০টার দিকে পাটুরিয়া ঘাট থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার আগে নবগ্রাম এলাকার কাছে আটকা পড়েছেন। দুই ঘণ্টা পার হলেও এখনো তাঁদের বাস ফেরির কাছে যেতে পারেনি। প্রচণ্ড গরমে বাসের মধ্যে তাঁর বাচ্চা কান্না করছে।

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একে ট্রাভেলস পরিবহনের বাসের চালক মিজানুর রহমান বলেন, ঘাটে এসে দেড় ঘণ্টা পর ফেরির টিকিট পেয়েছেন। ফেরিতে উঠতে আরও এক ঘণ্টা অপেক্ষায় থাকতে হবে বলে মনে হচ্ছে।

এদিকে ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় থাকা পণ্যবাহী গাড়ির শ্রমিকদের ভোগান্তি আরও বেশি। তাঁরা দুই থেকে তিন দিন পর্যন্ত ঘাটে এসে আটকে থাকছেন। নারায়ণগঞ্জ থেকে লবণবোঝাই ট্রাক নিয়ে যশোর যাচ্ছেন ইব্রাহিম হোসেন। তিনি বলেন, ছুটির দিনগুলোতে তাঁদের দুর্ভোগ আরও বেড়ে যায়। যাত্রী ও বাসের চাপ বেড়ে যাওয়ায় তাঁদের দুই-তিন দিন ঘাটেই পড়ে থাকতে হয়। এ সময় নিজের পকেটের টাকা খরচ করে খাওয়াদাওয়া করতে হয়।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মহিউদ্দিন রাসেল প্রথম আলোকে বলেন, এই নৌপথে ছোটবড় মিলিয়ে ২০টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। টানা তিন দিনের ছুটি থাকায় ঘাট এলাকায় যাত্রী ও যানবাহনের চাপ বেড়েছে। তবে যাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস ও ব্যক্তিগত যানবাহনগুলোকে আগে পার করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই সম্পর্কিত আরো খবর...
العربية বাংলা English हिन्दी