অন্তঃসত্ত্বা নারীদের করোনার টিকা দিতে আইনি নোটিশ

Spread the love

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনার টিকা প্রদানে ব্যবস্থা নিতে সরকারের তিন সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক বরাবর আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।
মানবাধিকার সংগঠন “ল অ্যান্ড লাইফ” ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবিরসহ সুপ্রিম কোর্টের দুজন আইনজীবী আজ বৃহস্পতিবার ই-মেইলে ওই আইনি নোটিশ পাঠানো হয়।

২৪ ঘণ্টা সময় দিয়ে নোটিশে বলা হয়, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের করোনার টিকা প্রদান শুরু করা না হলে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে জনস্বার্থে রিট করা হবে।

নোটিশে আরও বলা হয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী দেশে প্রতিবছর প্রায় ৩৫ লাখ নারী অন্তঃসত্ত্বা হন। অর্থাৎ ৩৫ লাখ অন্তঃসত্ত্বা নারী আরও ৩৫ লাখ মানুষের অস্তিত্ব বহন করেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাজার হাজার অন্তঃসত্ত্বা নারী ও শিশু মারা যাচ্ছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, অন্তঃসত্ত্বা নারীদের করোনার টিকা দেওয়া যাবে।

গবেষণা অনুযায়ী অন্তঃসত্ত্বা নারী করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বেশি ঝুঁকির মধ্যে থাকেন। অথচ সরকারের নির্ধারিত করোনা টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশনের সুরক্ষা অ্যাপে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিবন্ধন করার জন্য অন্তঃসত্ত্বা নারীদের কোনো সুযোগ রাখা হয়নি।

নোটিশে আরও বলা হয়, অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনার টিকা পাওয়ার অধিকার আছে। এ অধিকার দেশের  মৌলিক অধিকার। তাঁদের অগ্রাধিকার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত না করা নিপীড়নমূলক, বৈষম্যমূলক ও তাঁদের জীবনধারণের মৌলিক অধিকারের পরিপন্থী। অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা প্রদানের জন্য সুরক্ষা অ্যাপে সুযোগ করে দেওয়া সরকারের অন্যতম দায়িত্ব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই সম্পর্কিত আরো খবর...
العربية বাংলা English हिन्दी