রাজশাহীতে করোনার সংক্রমণ কমলেও মৃত্যু বাড়ছে

Spread the love

রাজশাহী জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২১২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৪৬ জনের নমুনা পরীক্ষা অনুপাতে শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৪১ শতাংশ। চলতি মাসে সংক্রমণের হার ১৫ থেকে ২২ শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করলেও গত জুনের তুলনায় জেলায় সংক্রমণের হার কিছুটা কমলেও মৃত্যু বেড়েছে।

এই পরিস্থিতিতে কঠোর বিধিনিষেধ চললেও রাজশাহী নগর ও জেলাজুড়ে মানুষের চলাফেরা বেড়েছে। রাস্তায় বেড়েছে ব্যক্তিগত গাড়িসহ পরিবহনের চাপ। কেউ কেউ দোকানপাট আংশিক খুলে ব্যবসা চালাচ্ছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে নগরে দেখা গেছে, মানুষের চলাচল বেড়েছে। নগরের কাঁচাবাজারগুলোতে নেই স্বাস্থ্যবিধি।

রাজশাহী নগরে গত ১১ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত বিধিনিষেধ চলে। এ সময় জেলা ও উপজেলাগুলোতে কঠোর বিধিনিষেধ ছিল। পরে ১ জুলাই থেকে সারা দেশের কঠোর বিধিনিষেধ চলে। ঈদের আগে ১৪ থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল থাকে। এরপর আবার আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোরতম বিধিনিষেধ চলছে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ঈদুল ফিতরের পর থেকে রাজশাহী জেলায় এবং বিভাগে করোনা রোগী বাড়তে থাকে। এটা অব্যাহত ছিল জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত। এরপর সংক্রমণ কিছুটা কমে আসে। ঈদুল আজহার পর কঠোর বিধিনিষেধে মানুষের চলাচল কমেছে। তবে সংক্রমণের হার ১৫ থেকে ২২ শতাংশের মধ্যেই থাকছে। মৃত্যুও খুব একটা কমেনি। সেই হিসাবে রাজশাহীতে সংক্রমণের চূড়ান্ত পরিস্থিতি পাড়ি দিয়ে ফেলেছে কি না, তা বলা যাচ্ছে না। এদিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও মৃত্যুও কমছে না।

রাজশাহী সিভিল সার্জন দপ্তরের পাঠানো করোনা-বিষয়ক প্রতিবেদন বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত জুন মাসে রাজশাহী জেলায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৮ হাজার ২১৯ জনের এবং এর বিপরীতে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮ হাজার ৪১৬ জনের। নমুনা পরীক্ষা অনুপাতে শনাক্তের হার ছিল ২২ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ। জুনে করোনায় জেলায় মারা যান ৭১ জন। এরপর ২৮ জুলাই রাজশাহী জেলায় মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩২ হাজার ৬৩৮ জনের। এতে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬ হাজার ৩৫১ জনের। শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৪৬ শতাংশ। এ সময়ে জেলায় মারা গেছেন ৮২ জন। অর্থাৎ জুন মাসের তুলনায় সামান্য পরিমাণে সংক্রমণের হার কমেছে। তবে মৃত্যু কিছুটা বেড়েছে।

সিভিল সার্জন দপ্তর থেকে জানা গেছে, রাজশাহী জেলায় এ পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৩ হাজার ৬১৪। তাঁদের মধ্যে রাজশাহী নগরের রোগী ১৯ হাজার ৫৪ জন। এ পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ২৩৯ জন। তাঁদের মধ্যে নগরের ১৪১ জন আর ৯৮ জন উপজেলাগুলোতে মারা গেছেন। মোট রোগীর অর্ধেকের বেশিই গত জুন ও জুলাই মাসে শনাক্ত হয়েছেন। আর মৃত্যুও এই দুই মাসে বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ। জুনের চেয়ে জুলাই মাসে সেটি উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে।

রাজশাহী জেলা সিভিল সার্জন মো. কাইয়ুম তালুকদার বলেন, যে পর্যন্ত সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের নিচে নেমে না আসা পর্যন্ত পরিস্থিতির কোনো উন্নতি বলা যাবে না। সংক্রমণের হার গত মাসের তুলনায় কিছুটা  কম। তবে অসতর্কতাভাবে চলাফেরা করার কোনো উপায় নেই। করোনার সংক্রমণ যেকোনো সময়ে আবার বাড়তে পারে, সেটা ধরে নিয়েই চলাফেরা করতে হবে। লকডাউন সামনে থাকুক আর না থাকুক, স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। সবাইকে মাস্ক পরতে হবে এবং পাশাপাশি টিকা নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই সম্পর্কিত আরো খবর...
العربية বাংলা English हिन्दी