তিন পণ্যের দাম না বাড়ানোর আশ্বাস

Spread the love

বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার নানা উদ্যোগ নিলেও মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্যে অসহনীয় হয়ে উঠেছে দেশের ভোগ্যপণ্যের বাজার। ফলে চাল, চিনি ও ভোজ্য তেলের দামে নাকাল ভোক্তারা। এ অবস্থায় গতকাল বুধবার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বৈঠকে ব্যবসায়ীরা আশ্বাস দিয়েছেন, আগস্টে আপাতত এই তিন পণ্যের দাম বাড়াবেন না তাঁরা ।

গতকাল বুধবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য নিয়ে আয়োজিত পর্যালোচনাসভায় ব্যবসায়ীরা এই আশ্বাস দেন। বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এসব তথ্য জানান বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষ। তিনি বলেন, ‘আজকের বৈঠকে কোনো পণ্যের দাম নির্ধারণ করা হয়নি। তবে কোনো পণ্যের দাম বাড়লে বা কমলে তা আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাড়ানো-কমানো হবে। এ জন্য কাজ করবে সরকারের নির্ধারিত কমিটি।’

বাণিজ্যসচিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় অন্যদের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মো. মফিজুল ইসলাম, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মো. হাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত সচিব (আইআইটি) এ এইচ এম সফিকুজ্জামান, এফবিসিসিআইর জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী, বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনের সদস্য আবু রায়হান আল-বেরুনী, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান প্রমুখ।

বাণিজ্যসচিব বলেন, ‘বাজারের পাইকারি বিক্রেতা থেকে খুচরা বিক্রেতাদের সরবরাহ লাইনে সংকট আছে। সেখানেও শৃঙ্খলা ফেরাতে কাজ করবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এ ছাড়া প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ভোগান্তি লাঘবে টিসিবির কার্যক্রমকে জোরদার করা হয়েছে। এর মধ্যে টিসিবি গত বছরের তুলনায় চলতি বছরের আড়াই গুণ বেশি পণ্য সেবা বৃদ্ধি করেছে।’ চালের বাজারে স্থিতিশীলতা নিয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয় কাজ করছে উল্লেখ করে বাণিজ্যসচিব বলেন, ‘এরই মধ্যে চালের আমদানি শুল্ক কমানো হয়েছে। ৬৫ থেকে কমিয়ে ২৫ শতাংশ করা হয়েছে। সাত লাখ টন চাল আমদানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এই চাল বাজারে এলে বাজার স্থিতিশীল হয়ে আসবে।’ এ ছাড়া এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাজারে যেসব পণ্যের অসহনীয় দাম, এসব পণ্যে শুল্ক কমাতে প্রয়োজনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে সুপারিশ পাঠাবে। এরই মধ্যে চিনির শুল্ক কমাতে অনুরোধ করা হয়েছে।’

আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে উল্লেখ করে বাণিজ্যসচিব বলেন, ‘স্থানীয় বাজারে যেন ব্যবসায়ীরা দাম বেশি না বাড়ান বিষয়টি নিয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা হয়েছে। এ জন্য সরকারের বাজার তদারকি প্রতিষ্ঠান এবং ট্যারিফ কমিশন কাজ করবে। বাজারে পণ্যের সরবরাহে ঘাটতি নেই। তবে আন্তর্জাতিক বাজারের ভোজ্য তেল ও চিনির দাম বেড়েছে।’

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে ছিলেন সিটি গ্রুপের উপদেষ্টা এম মুর্তজা রেজা, এস আলম গ্রুপের জ্যেষ্ঠ মহাব্যাবস্থাপক কাজী সালাহ উদ্দিন আহমেদ, মেঘনা গ্রুপের ডেপুটি অ্যাডভাইজার মো. শফিউর রহমান, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন এবং বাংলাদেশ ব্যাংক, কৃষি মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা, কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের প্রতিনিধিরা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই সম্পর্কিত আরো খবর...
العربية বাংলা English हिन्दी