মেকআপ মনের সৌন্দর্যকেই বের করে আনে: ক্যাটরিনা

Spread the love

বিউটি নিয়ে বলিউডে যাঁরা কাজ করেন, তাঁদের ভেতর একদম শুরুতেই যাঁর নাম উঠে আসবে, তিনি ক্যাটরিনা কাইফ। দুই বছর হতে চলল তাঁর বিউটি ব্র্যান্ড ‘কে বাই ক্যাটরিনা’র বয়স। ক্যাটরিনা মনে করেন, প্রত্যেক ব্যক্তিই তাঁর নিজের মতো করে সুন্দর। তাঁর মেকআপ প্রোডাক্টগুলো কেবল সেই সৌন্দর্যকে সুস্পষ্ট করে তোলে। জেনে নেওয়া যাক ক্যাটরিনার সৌন্দর্যের কিছু নিজস্ব রহস্য।

১. ক্যাটরিনা বরফশীতল পানিতে মুখ ডুবিয়ে রাখেন। ৫ থেকে ১০ মিনিট ধরে এ রকম করেন। মুখের কোথাও ফুলে গেলেও ক্যাটরিনা সবার আগে সেখানে বরফ লাগান।
২. ভারী মেকআপ নেওয়ার আগে ক্যাটরিনা হট ওয়াটার থেরাপি নেন। এতে মুখে মেকআপ বসে ভালো।
৩. ঘুম থেকে উঠে ক্যাটরিনা সবার আগে চার গ্লাস পানি পান করেন।
৪. ক্যাটরিনা হালকা শেডের ভ্রু পেনসিল দিয়ে আইব্রো আঁকেন। সেটার শেপ স্পষ্ট করেন। আর পরে ব্রাশ দিয়ে আঁচড়ে নেন।
৫. চোখের ওপর আইশ্যাডো স্টিক লাগান। চোখের নিচ দিয়েও চিকন করে আইশ্যাডো দেন। হাইলাইটার তাঁর খুবই পছন্দ। এতে নাকি ‘সানকিসড’ লুক আসে। আলতো করে লিপিস্টিক দিয়ে দুই চোয়ালের ওপরটা হাইলাইট করেন।
৬. ভারী মেকআপের পর আর বের হওয়ার আগে ১০ মিনিটের একটা ন্যাপ নেন।

ক্যাটরিনা কাইফ তাঁর মেকআপের ব্যাপারে বলেন, ‘শুরু থেকেই আমি মেকআপ ব্যাপারটাকে বুঝতে চেয়েছি। ত্বককে সুরক্ষিত রেখে নিজের ত্বকের সৌন্দর্যকে উদ্‌যাপন করার জন্য আমি বরাবরই আগ্রহী ছিলাম। একজন যখন নিজের মতো হয়ে ওঠে, তখনই তাকে সবচেয়ে সুন্দর দেখায়। যখন একজন নিজের ত্বক নিয়ে খুশি থাকে, তখন এমনিতেই ভেতরের সৌন্দর্য বের হয়ে আসে। আর মেকআপটা যখন ত্বকের সঙ্গে সুন্দর মানিয়ে যায়, তখন ওই মেকআপ ওই ত্বকের একটা অংশ হয়ে যায়। আর সেটা ভেতরের সৌন্দর্যকে বের করে আনে। মনের সৌন্দর্যই বড় কথা। মেকআপ কেবল সেটা বের করে আনে।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই সম্পর্কিত আরো খবর...
العربية বাংলা English हिन्दी